বুধবার,২০শে জুন, ২০১৮ ইং, ৬ই আষাঢ়, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ৬ই শাওয়াল, ১৪৩৯ হিজরী

 
 

নতুন দল নিয়ে রাজনীতিতে আসার ঘোষণা রজনীকান্তের

 

একেই বলে রজনীকান্ত স্টাইল। বছরের শেষ দিনেই বোমা ফাটালেন দক্ষিণ ভারতের তামিল কিংবদন্তি অভিনেতা রজনীকান্ত। সব জল্পনা-কল্পনায় ইতি টেনে রাজনীতিতে সক্রিয়ভাবে প্রবেশের কথা ঘোষণা করে দিলেন রজনীকান্ত। সুপারস্টার রজনীকান্ত রাজনীতিতে পা রাখবেন কি না সেই নিয়ে বহুদিন ধরেই নানা মহলে আলোচনা চলছিল। ৩১ ডিসেম্বর তার সিদ্ধান্ত খোলাখুলি জানাবেন বলে ঘোষণাও করেছিলেন তিনি।

রবিবার চেন্নাইয়ের রাঘবেন্দ্র মণ্ডবে ভক্তদের সঙ্গে তার সাক্ষাৎপর্বের ষষ্ঠ দিনে রাজনীতিতে প্রবেশের কথা স্পষ্টই করে দিলেন ‘থালাইভা’ স্বয়ং।

গত মঙ্গলবার ভক্তদের সমাবেশে রজনী বলেছিলেন, ‘রাজনীতির সঙ্গে আমার যোগ নতুন কিছু নয়। ১৯৯৬ সাল থেকেই রাজনীতির সঙ্গে যোগ রেখে চলেছি। তবে, প্রত্যক্ষভাবে রাজনীতিতে আসতে একটু দেরিই হয়ে গেল। আগামী ৩১ ডিসেম্বর আমার চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানাব।’

রবিবার সকাল থেকেই রাঘবেন্দ্র মণ্ডবে ছিল উপচে পড়া ভিড়। ‘থালাইভা’কে দেখতে ভিড় জমিয়েছিলেন হাজার হাজার মানুষ। তার বক্তব্য শুরু হওয়ার পরই উচ্ছ্বাসে ফেটে পড়ে জনতা।

রজনী বলেন, ‘দেশের গণতন্ত্র বিপর্যস্ত। রাজনীতিকরা গণতন্ত্রের নামে সাধারণ মানুষের জমি এবং সম্পত্তি হরণ করছেন। এটাই সঠিক সময় পরিবর্তনের।’

রজনীকান্তের মতে, ‘গণতন্ত্রের অবস্থা খুব খারাপ। দেশের অন্যান্য রাজ্য আমাদের (তামিলনাড়ু) নিয়ে মজা করছে। এখন সিদ্ধান্ত নিতে দেরি করলে পরে আফসোস করব।’

গত কয়েক মাস ধরেই তামিল রাজনীতির অন্দরে নানা প্রশ্ন আনোগোনা করছিল। রজনীকান্ত কি রাজনীতিতে আসতে চলেছেন? আসলেও কোন দলে যোগ দেবেন তিনি? বিজেপি-তেই কি যোগ দেবেন রজনী, না কি নিজের আলাদা দল গড়বেন? ঘনিষ্ঠ মহলেও সক্রিয় রাজনীতিতে যোগ দেয়ার কথা জানিয়েছিলেন। তবে আজ তিনি নিজের আলাদা দল গড়ার কথা স্পষ্ট করেছেন রজনী। আগামী বিধানসভা নির্বাচনে তাকে লড়তে দেখা যাবে বলে ঘোষণাও করেছেন।

রজনীকান্ত বলেছেন, ২০২১ সালে বিধানসভা নির্বাচনে তার দল ২৩৪টি আসনে প্রার্থী দেবে। ২০১৯ সালে সংসদীয় নির্বাচনেও তার দল অংশ নেবে বলে তিনি ঘোষণা দেন। তাছাড়া ক্ষমতায় যাওয়ার তিন বছরের মধ্যে তার দল যদি নির্বাচনী ওয়াদা পূরণ করতে না পারে তবে তিনি ইস্তফা দেবেন।

জয়ললিতার মৃত্যুর পর তামিল রাজনীতিতে যখন সঙ্কটজনক পরিস্থিতি,  সে সময় রজনীকান্তের ওপরেই সমস্ত আশা-ভরসা রেখেছেন তার ভক্তরা।

রিল লাইফের ‘বস’ থেকে রাজনীতিতেও ‘বস’ হয়ে উঠবেন কি না, সেই দিকেই এখন তাকিয়ে গোটা তামিলনাড়ু।

সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা

আজকে

  • ৬ই আষাঢ়, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
  • ২০শে জুন, ২০১৮ ইং
  • ৬ই শাওয়াল, ১৪৩৯ হিজরী
 

সোশ্যাল নেটওয়ার্ক

 

Express News

 
 
 
প্রধান সম্পাদকঃ এম এ জাহান। চেয়ারম্যানঃ ছিদ্দিকুর রহমান।
উপদেষ্টাঃ আঃ বাছিদ আছিদ। পরিচালনায়ঃ আবুবকর ছিদ্দিক।
পৃষ্ঠপোষকঃ আঃ জলিল ভূইয়া।
সিনিয়র রিপোর্টারঃ মোঃ জিয়াউর রহমান,মোঃ ইউছুপ মনির ,মোঃ হারুনুর রশিদ,রাসেল আহাম্মেদ,এ এস হিরু,মোঃ শুকুর আলী,এস আর সাইফুল।