বৃহস্পতিবার,১৯শে জুলাই, ২০১৮ ইং, ৪ঠা শ্রাবণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ৬ই জিলক্বদ, ১৪৩৯ হিজরী

 
 

সুইজারল্যান্ডের গোলটি বাতিল করা উচিত ছিল : ব্রাজিল কোচ

 

স্পোর্টস ডেস্ক: ফেবারিটের মতো শুরু হলো না ব্রাজিলের। দারুণ গোলে এগিয়ে যাওয়ার পরও অপেক্ষাকৃত দুর্বল সুইজারল্যান্ডের বিপক্ষে ১-১ গোলের ড্র নিয়ে মাঠ ছেড়েছে তিতের শিষ্যরা। তবে সুইসদের দেয়া বিতর্কিত গোলটি নিয়ে অভিযোগ আছে ব্রাজিলিয়ানদের। দলের কোচ তিতে মনে করছেন, যেভাবে গোলটি করেছেন স্টিফেন জুভের, সেটা অবশ্যই বাতিল করা উচিত ছিল।

ফিলিপ কৌতিনহোর দুর্দান্ত এক শটে ম্যাচের ১৯ মিনিটেই এগিয়ে যায় ব্রাজিল। দ্বিতীয়ার্ধেও তারা ব্যবধান বাড়ানোর যথাসাধ্য চেষ্টা করেছে, এর মধ্যে কর্ণার থেকে একটি গোল পেয়ে যায় সুইজারল্যান্ড। তবে ওই গোলটি নিয়ে বিতর্ক আছে। কেন?

জুভের যে ডি-বক্সের মধ্যে দাঁড়িয়ে ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার মিরান্ডাকে ধাক্কা দিয়ে গোলটি করেছেন। মিরান্ডা হেড নেয়ার জন্য লাফানোর সুযোগই পাননি। শাকিরির কর্ণার থেকে গোল করার সময় জুভের তার সামনে থাকা মিরান্ডার পিঠে হাত দিয়ে ধাক্কা দেন। সেই ধাক্কার টাল সামলাতেই পারেননি ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার, ততক্ষণে দেখলেন গোল উৎসবে মেতে উঠেছে সুইস শিবির।

বিতর্কিত সিদ্ধান্ত ছিল আরও একটি। ম্যাচের ৭৪ মিনিটে ব্রাজিলিয়ান স্ট্রাইকার গ্যাব্রিয়েল হেসুসকে হাত দিয়ে ফেলে দিয়েছিলেন ম্যানুয়েল আকাঞ্জি। তবে সেটা নিয়ে খুব বেশি অভিযোগ নেই তিতের।

ব্রাজিল কোচ মনে করছেন, সমতায় ফেরানো গোলের সময় জুভের ডি বক্সের মধ্যে যা করেছেন, সেটা অপরাধ। তিনি বলেন, ‘মিরান্ডার ওই ঘটনার মুহূর্তটা খুবই পরিষ্কার ছিল। খুবই পরিষ্কারভাবে দেখা গেছে। আপনি (রেফারি) পেনাল্টি (আবেদন) নিয়ে কথা বলতে পারেন। কিন্তু প্রথম ঘটনাটা নিয়ে আলোচনার কিছু ছিল না। আপনাকে অবশ্যই সৎ থাকতে হবে। আমি এমন কিছু নিয়ে কথা বলব না, যা একেবারে সুষ্পষ্ট ছিল। এটা ফাউল ছিল।’

ব্রাজিল কোচ তার দলের সততার উদাহরণ টেনে বলেন, ‘আমি এটাও বলতে চাই, মিরান্ডা আমাকে বলেছিল-“ভালো, যখন সে আমাকে ধাক্কা দিল। আমার পড়ে যাওয়া উচিত ছিল।” কিন্তু আমি বলেছি-না, অবশ্যই নয়। ভান করার কোনো প্রয়োজন নেই। ফাউল নেয়ার প্রয়োজন নেই। না হলে মনে হবে, তুমি এটা নিতেই চাইছিলে।’

তবে গোল নিয়ে ব্রাজিলের অভিযোগকে আমলে নিচ্ছে না সুইজারল্যান্ড। দলের কোচ ভ্লাদিমির পেতকোভিক বলেন, ‘এটা স্বাভাবিক একটা গোল ছিল। সুযোগ তৈরি করতে আপনাকে জায়গা করে নিতেই হবে। ডিফেন্ডার সঠিক পজিশনে ছিল না। ভিএআরের রেফারিরাও কিন্তু এই ঘটনাটায় চোখ রেখেছিল।’

যার কর্ণার থেকে বিতর্কিত গোলটি এসেছে, সেই শাকিরিও এটাকে ফাউল মনে করছেন না। সুইস ফরোয়ার্ড বলেন, ‘এটাকে ফাউল বললে বাড়াবাড়ি হবে। প্রতি ম্যাচেই একটু আধটু স্পর্শ লাগে (খেলোয়াড়দের মধ্যে)। এটাই ফুটবল। এই স্পর্শ করা ছাড়া আপনি মাঠে থাকতে পারবেন না। হ্যাঁ, কিছু ধাক্কা হয়তো ফাউল। তবে কর্ণার থেকে এটা সাধারণ একটা চ্যালেঞ্জ ছিল। এটা ফাউল ছিল না।’

আজকে

  • ৪ঠা শ্রাবণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
  • ১৯শে জুলাই, ২০১৮ ইং
  • ৬ই জিলক্বদ, ১৪৩৯ হিজরী
 

সোশ্যাল নেটওয়ার্ক

 

Express News

 
 
 
প্রধান সম্পাদকঃ এম এ জাহান। চেয়ারম্যানঃ ছিদ্দিকুর রহমান।
উপদেষ্টাঃ আঃ বাছিদ আছিদ। পরিচালনায়ঃ আবুবকর ছিদ্দিক।
পৃষ্ঠপোষকঃ আঃ জলিল ভূইয়া।
সিনিয়র রিপোর্টারঃ মোঃ জিয়াউর রহমান,মোঃ ইউছুপ মনির ,মোঃ হারুনুর রশিদ,রাসেল আহাম্মেদ,এ এস হিরু,মোঃ শুকুর আলী,এস আর সাইফুল।